Bkkb Job Exam Circular 2022 । স্টাফবাস সার্ভিস কর্মসূচি ও মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের শূন্য পদে সরাসরি নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার সময় সূচি

কম্পিউটার অপারেটর, প্রশিক্ষিকা ইত্যাদি পদে লিখিত পরীক্ষা হইবে – বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড এর স্টাফবাস সার্ভিস কর্মসূচি ও মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের শূন্য পদে সরাসরি নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার সময় সূচি ২০২২

বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড বাংলাদেশের সরকারি কর্মচারীদের কল্যাণের জন্য গঠিত একটি সরকারি বোর্ড। এর সদরদপ্তর রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত। এই বোর্ডের নেতৃত্বে আছেন মহাপরিচালক ড. নাহিদ রশীদ।

বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড ২০০৪ সালের ২৯ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৩ সালে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের বিক্ষোভকারীরা দিলকুশার ডিপোতে রাখা বোর্ডের ৫৩টি বাস ক্ষতিগ্রস্ত করে। বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড (সংশোধন) আইন, ২০১৩ সালে পাসের মাধ্যমে বোর্ডের কার্যক্রম হালনাগাদ করা হয়।

সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের সময়মত অফিসে যাতায়াতের জন্য ঢাকা মহানগরী ও বিভাগীয় পর্যায়ে চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট ও জেলা পর্যায়ে রাঙামাটিতে স্টাফবাস কর্মসূচী পরিচালনা করা হচ্ছে। স্টাফবাসে যাতায়াতের জন্য বড়বাসে প্রতি কিলোমিটারে ০.৬২৫ টাকা ও মিনিবাসে ১.২৫ টাকা হারে ভাড়া আদায় করা হয়। এ কর্মসূচীর অধীনে বর্তমানে ৯০ টি বাসের মধ্যে ৬৪ টি সরকারের এবং ২৬ টি বিআরটিসি হতে ভাড়াকৃত বাস রয়েছে। উক্ত বাসগুলি দ্বারা প্রায় ৯ হাজার ৬৬৪ জন কর্মকর্তা কর্মচারিকে স্বল্প ভাড়ায় সময়মত অফিসে আনা নেয়া করা হচ্ছে।

দেশে ও বিদেশে জটিল ও ব্যয়বহুল রোগের চিকিৎসা অনুদান/ দাফন/অন্ত্যে্ষ্টিক্রিয়া অনুদান

প্রজাতন্ত্রের সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী কর্মরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে ০১/০৭/২০১৬ খ্রি. তারিখ হতে টাঃ ৩০,০০০/- এবং পরিবারের সদস্যদের মৃত্যুর ক্ষেত্রে টা: ১০,০০০/- দাফন/অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার অনুদান বাবদ প্রদান করা হয়।

Bkkb Job Exam Circular 2022 । স্টাফবাস সার্ভিস কর্মসূচি ও মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের শূন্য পদে সরাসরি নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার সময় সূচি

বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যান বোর্ড-সরকারী ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের আশ্রয়স্থল

সরকারি কর্মচারীগণ বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যান বোর্ড থেকে যে সেবা সমূহ পেয়ে থাকেন

  1. জটিল রোগের চিকিৎসা অনুদান
  2. সাধারণ চিকিৎসা অনুদান
  3. কল্যাণভাতা/যৌথবীমা/দাফন অনুদান
  4. শিক্ষাবৃত্তি/সহায়তা

কেন বিকেকেবি গঠন করা হয়েছে?

প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের সেবাপ্রদানের লক্ষ্যে বোর্ডকে একটি দক্ষ, যুগোপযোগী ও তথ্য-প্রযুক্তিসমৃদ্ধ কল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা। বিভিন্ন সেবা প্রদানের মাধ্যমে প্রজাতন্ত্রের অসামরিক কাজে নিয়োজিত বোর্ডের অধিক্ষেত্রের সকল কর্মচারী এবং তাঁদের পরিবারবর্গের কল্যাণ সাধনে প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান। সরকারি ও তালিকাভুক্ত স্বায়ত্বশাসিত সংস্থায় কর্মরত, অক্ষম, অবসরপ্রাপ্ত, মৃত কর্মকর্তা কর্মচারির নিজ ও পরিবারের সদস্যদের জন্য প্রতি বছরে একবার চিকিৎসা সাহায্য হিসেবে ৪ মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ সর্বোচ্চ টাঃ ৪০,০০০/- প্রদানের বিধান আছে। কর্মকর্তা কর্মচারী নিজে আমৃত্যু এবং পরিবারের সদস্যগণ কর্মকর্তা কর্মচারীর বয়স ৭৫ বছর পর্যন্ত এ অনুদান প্রাপ্য হবেন। সূত্র: বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যান বোর্ড

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *